সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন। 

তুহিন সরকারঃ

সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন। প্রথম আলোর সিনিয়র সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্থা, নির্যাতনের প্রতিবাদ ও তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে  মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাব।

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাকে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক আখ্যায়িত করে অবিলম্বে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন মুন্সিগঞ্জ  জেলার সাংবাদিক নেতারা।

প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা ও গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন ও সমাবেশ থেকে এই দাবি জানানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রেসক্লাব ভবননের প্রধান সড়কে অনুষ্ঠিত এই কর্মসূচিতে বিভিন্ন সাংবাদিক ও সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন,  সাংবাদিক রোজিনাকে হেনস্তাকারী নারীর কানাডায় ৩টি, পূর্ব লন্ডনে ১টি, ঢাকায় ৪টি বাড়ি, গাজীপুরে ২১বিঘা জমি ও ব্যাংকে শত কোটি টাকা আছে। তার বিচার আগে করা উচিত বলে আমরা মনে করি।

উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ গোলাম আশরাফ খান উজ্জ্বল, মোঃ জিয়াউর রহমান জীবন, হুমায়ুন আহমেদ, মনির হোসেন, মোঃ তুহিন সরকার, এম জামাল হোসেন মন্ডল।

সাইফুল ইসলাম কামাল, তোফাজ্জল হোসেন শিহাব, হামিদুল ইসলাম লিংকন, সাইদ – উর রহমান, মুকবুল হোসেন, রাজ মল্লিক, সাখাওয়াত হোসেন মানিক, আবুল কালাম, নাছির উদ্দীন, মোরসালিন রহমান, আলমগির হোসেন, রহিম মিয়া, আপন সরদার, মীর রাতুল, শাজাহান খান, নাজমুল হাসান, ফরহাদ হোসেন, নাসির উদ্দিন, কাজী বিপ্লব হাসান, মানিক মিয়াসহ অন্যান্য সাংবাদিকবৃন্দ।

বক্তারা বলেন, যেভাবে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে সচিবালয়ে আটকে রেখে হেনস্তা করা হয়েছে, তা মুক্ত গণমাধ্যম ও সাংবাদিকতার জন্য হুমকি। তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার করে তাঁকে নিঃশর্ত মুক্তি দেওয়ার দাবি জানান সাংবাদিকনেতারা।

সাংবাদিকনেতারা আরও বলেন, একের পর এক দুর্নীতির ঘটনা তুলে ধরার কারণে রোজিনা ইসলাম স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রোষানলে পড়েন। পরিকল্পিতভাবে তাঁকে ফাঁসানোর জন্য হেনস্তা করে এই মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.